সূচীপত্র

২০১৯ -২০২০ শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেনির ভর্তি চলিতেছে । আবেদন (প্রথম পর্ব) ১৩/০৫/১৯-২৪/০৫/১৯ ১ম পর্ব ফলাফল প্রকাশ -১০/০৬/২০১৯

ইতিহাস

প্রতিষ্ঠানের সংক্ষিপ্ত বিবরণী:

খুলনা শহর থেকে খুলনা-ঢাকা মহাসড়ক ধরে পনের কিলোমিটার সামনে অগ্রসর হলেই হাতের ডানপাশে নজর পড়বে জাহানাবাদ সেনানিবাস। সবুজ গাছপালায় সুশোভিত, ছায়া-সুনিবিড় আর হাজারো পাখির কলতানে সদা মুখর এখানকার পরিবেশ। সেনানিবাসে অবস্থানরত সেনাসদস্য এবং স্থানীয় জনগণের সন্তানদের সুষ্ঠু শিক্ষার পরিবেশ নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সেনা উদ্দোগ্যে ১৯৮৫ সালে বর্তমান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল শাখা প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই স্কুলেই সার্বিক ফলাফল অত্যন্ত ভালো।

উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের জন্য এলাকায় মানসম্পন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না থাকায় সরকারের কলেজিয়েট স্কুলের নীতিমালার আওতায় ১৯৯৫ সালে বর্তমান কলেজ শাখা খোলা হয়। ১১ জন শিক্ষক নিয়ে কলেজের যাত্রা শুরু হয় এবং ০৮ জানুয়ারী ১৯৯৬ সালে শিক্ষাবোর্ড থেকে একাডেমিক স্বীকৃতি লাভ করে।

প্রতিষ্ঠিত হবার পর থেকেই এই প্রতিষ্ঠানের পাশের হার অত্যন্ত ভালো। ১৯৯৭ সাল থেকে ২০০১ সাল পর্যন্ত মোট ছয় জন শিক্ষার্থী সম্মিলিত মেধা তালিকায় স্থান লাভ করে। ১৯৯৭ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় সকল ক্যান্ট পাবলিক কলেজের মধ্যে প্রথম স্থান অধিকার করাই “সেনাবাহিনী ট্রফি” অর্জন করার গৌরব লাভ করে।

২০১০ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাশের হার ৯৬.১২%। পাশের হার বিবেচনায় যশোর শিক্ষাবোর্ডে এই প্রতিষ্ঠানটির অবস্থান দ্বিতীয়। পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী মোট ১২৯ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ২১ জন জিপিএ-৫.০০ প্রাপ্ত হয়।